ঢাকা, সোমবার ২৬ জুন ২০১৭  ,
১২:৪৩:৪০ ফেব্রুয়ারি  ১৬, ২০১৭ - বিভাগ: স্বাস্থ্য


স্বাস্থ্যগত ভুল ধারণা

Image

স্বাস্থ্য সচেতন হওয়া ভালো। কিন্তু সেই সচেতনতার ভিত্তি বিজ্ঞানসম্মত কিনা সেটাও দেখা দরকার। ভ্রান্ত ধারণার বশবর্তী হয়ে এমন অনেক কিছুই আমরা মেনে চলি যার বেশির ভাগই ভুলে ভরা। চলুন দেখে নেওয়া যাক আমাদের তেমনই কিছু ভুল ধারণা, যা আমরা হরহামেশা মেনে চলছি।

* রোগাদের কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকে না :  আপনি রোগা বা মোটা যেমনই হন না কেন আপনার হাই কোলেস্টেরল হতে পারে। আসলে কোলেস্টেরল হওয়ার পেছনে ওজনই একমাত্র কারণ নয়। আপনি কতটা অ্যাকটিভ, কী ধরনের খাবার খান এবং আপনার জিন নির্ণয় করে আপনার শরীরে হাই কোলেস্টেরল থাকবে কি, থাকবে না।

* হার্ট অ্যাটাক বুকে ব্যথা দিয়ে শুরু হয় :  হার্ট অ্যাটাক সব সময় বুকে ব্যথা দিয়ে শুরু হয় না। হার্ট অ্যাটাক হলে নিশ্বাস নিতে কষ্ট হয়, ক্লান্ত লাগে, চোয়ালে ব্যথা, ঘাম হয়। ব্যথা হয় ঘাড় এবং কাঁধেও। পারিবারিক হার্ট অ্যাটাকের দৃষ্টান্ত থাকলে, আপনার যদি এ রকম কোনো লক্ষণ দেখা দেয়, তাহলে অবিলম্বে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

* ব্রেস্টে লাম্প মানেই ব্রেস্ট ক্যানসার : সাধারণত ৮০% ব্রেস্ট লাম্পেই ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। অনেক সময় সিস্টও হতে পারে। ইনফেকশন থেকেও লাম্প হতে পারে। তাই লাম্প হলেই ভেবে নেবেন না তা ক্যানসার।

* ত্বক ঠিকমতো পরিষ্কার না করলে অ্যাকনে হয় :  হরমনাল সমস্যা থাকলে অ্যাকনে হয়। ত্বক পরিষ্কার বা অপরিষ্কার থাকার সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই।

* রাতের খাবার শেষ করেই দাঁত মাজা উচিত :  রাতের খাবারের সঙ্গে যদি কোনো ফল অথবা মিষ্টি, সোডা জাতীয় খাবার থাকে তাহলে খাবার শেষ করেই দাঁত ব্রাশ করলে দাঁতের এনামেল ক্ষয় হয়ে যায়। তাই রাতের খাবার শেষ করার অন্তত একঘণ্টা পর দাঁত ব্রাশ করুন।

* অ্যাজমা থাকলে ডাবের পানি খেলে ঠাণ্ডা লেগে যায় : ডাবের পানি খেলে ঠাণ্ডা লাগে না। বরং অ্যাজমা হলে বেশি করে ডাবের পানি খাওয়া উচিত। কারণ ডাবের পানিতে পটাশিয়াম থাকে যা অ্যাজমার জন্য উপকারী।




স্বাস্থ্য 'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি