ঢাকা, বুধবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭  ,
১৯:০৫:৫৬ ফেব্রুয়ারি  ১৬, ২০১৭ - বিভাগ: উপ-সম্পাদকীয়


হজ ও ওমরাহ্র সাথে সংশ্লিষ্ট কিছু স্থাপনা, শব্দ ও সংজ্ঞার পরিচিতি

Image

মোস্তাফা হাবিব আহসান

পবিত্র হজ বা ওমরাহ পালন করতে গেলেই কতকগুলো স্থাপনা, শব্দ সংজ্ঞা বা পরিভাষার সম্মুখীন হতে হয় হাজিদের। সেসব পরিভাষার সাথে পরিচিত হওয়া এবং সেগুলো সম্বন্ধে স্বচ্ছ জ্ঞান বা ধারণা থাকা প্রত্যেক হাজির জন্য অতি আবশ্যিক। উল্লেখযোগ্য সংজ্ঞা বা পরিভাষাগুলো হলো:- (১) কা’বা ঘর বা বাইতুল্লাহ (২) বাইতুল মামুর (৩) মাসজিদুল হারাম (৪) ইহরাম (৫) তাল্বিয়া (৬) মুহরিম (৭) মাহরাম (৮) মীকাত (৯) আমের ও মামুর (১০) হাতীম (১১) মাতাফ (১২) মুলতাযাম (১৩) মাকামে ইবরাহীম (১৪) মীজাবে রহমত (১৫) হাজরে আস্ওয়াদ (১৬) তওয়াফ (১৭) তওয়াফে ওমরাহ্ (১৮) তওয়াফে যিয়রাহ (১৯) রুক্নে হাজরে আস্ওয়াদ (২০) রুক্নে ইরাকী (২১) রুক্নে শামী (২২) রুক্নে ইয়ামানী (২৩) সাফা (২৪) মারওয়া (২৫) মাইলাইনে আখদারাইন (২৬) ইছতিলাম (২৭) ইজতিবা (২৮) রমল (২৯) হাবাম বা হেরেম (৩০) তাকবীর (৩১) তাসবীহ (৩২) তাহলীল (৩৩) ক্বিরান (৩৪) তামাত্তু (৩৫) ইফরাদ (৩৬) হাল্ক (৩৭) কসর (৩৮) দম (৩৯) জামারাহ্ (৪০) রমী (৪১) ইয়াত্তমে তারবীয়াহ (৪২) আইয়্যুামুত তাশ্রীফ (৪৩) মীনা (৪৪) আরাফাহ (৪৫) মুয্দালিফা (৪৬) জান্নাতুল বাকী (৪৭) মাশ্আ’রিল হারাম (৪৮) জাবালে নূর বা হেরাগুহা (৪৯) জাবালে রহমত (৫০) জাবালে সাত্তর (৫১) জাবালে আবু কোবায়েস (৫২) মসজিদ খাইফ (৫৩) মসজিদে নামিরাহ (৫৪) মসজিদে জ্বীন (৫৫) মাওলিদুন নাবী।
কাবা ঘর বা বাইতুল্লাহ: এটি পবিত্র মক্কা মুকাররামায় মসজিদুল হারামের মাঝখানে বিশ্বের প্রথম ইবাদত ঘর। কাবা ঘরের অপর নাম বাইতুল্লাহ। অর্থ আল্লাহর ঘর। এই ঘরটি মহান আল্লাহ পাকের নির্দেশে ফেরেশ্তা দ্বারা নির্মিত। কা’বা ঘর পৃথিবীর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। এই ঘরটি সকল মুসলমানের কিব্লা এবং অত্যন্ত বরকতময়। কা’বা ঘর সপ্তম আসমানে ফেরেস্তাদের ইবাদত ঘর ‘বাইতুল মামুরের’ সোজা নিচে অবস্থিত। মুসলমানরা এখানে এসে কা’বা ঘরের ইবাদত করেন না, এখানে এসে মহান আল্লাহ পাকের ইবাদত করেন। কা’বা ঘর মুসলিম উম্মাহর ঐক্যের প্রতীক। মহান আল্লাহ পাক পবিত্র কা’বা ঘরকে সকল মানবজাতির মিলনস্থল ও নিরাপদস্থল হিসাবে ঘোষণা করেছেন (সূরা বাকারা, আয়াত:১২৫)। কালো গিলাফে ঢাকা আল্লাহর এ ঘরের দিকে তাকিয়ে থাকাও ইবাদত। নামাজ পড়া, রোজা রাখা যেমন ইবাদত, তেমনি আদব ও মহব্বতের সাথে আল্লাহর ঘরের দিকে শুধু তাকিয়ে থাকাও একটি মহান ইবাদত। কী আছে এ ঘরে! কী আছে কালো গিলাফের আবরণে? দেখতে সাধারণ ঘর অথচ এত অসাধারণ! কী কারণে এ ঘরের এত মর্যাদা? কারণ এই ঘর মহান আল্লাহ্ পাকের ঘর। এই ঘরে সর্বদা মহান আল্লাহ পাকের খাস রহমত বর্ষিত হয়। এই পবিত্র ঘর মানুষের নিরাপত্তার স্থল। এই ঘরের দিকে তাকালে চোখ জুড়িয়ে যায়, হৃদয়-মন নূরের আলোয় উদ্ভাসিত হয়, অশান্ত মন শীতল হয়ে যায়। এ ঘরের দিকে তাকিয়ে নিজেকে সিক্ত করলে নিজের সব পাপ ও গ্লানি ধুয়ে মুছে মুক্ত হওয়া যায়।


উপ-সম্পাদকীয়'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি