দেশের দুই কোটি জনগোষ্ঠী মৎস্য খাতে সম্পৃক্ত : প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

0
2

নিজস্ব প্রতিবেদক

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, দেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর পুষ্টি চাহিদা পূরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, দারিদ্র বিমোচন ও বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে মৎস্য খাত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। দেশের প্রায় দুই কোটি জনগোষ্ঠী (১২ শতাংশের বেশি) মৎস্য খাতের বিভিন্ন কার্যক্রমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সম্পৃক্ত থেকে জীবিকা নির্বাহ করছে।

শনিবার জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ উপলক্ষে রাজধানীর রমনায় মৎস্য অধিদফতরের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বলেন, দেশের মোট রফতানি আয়ের ১.৩৯ শতাংশ আসে মৎস্য খাত থেকে। মৎস্য খাতের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৬.১০ শতাংশ।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশে মোট মৎস্য উৎপাদন হয়েছে ৪৫ লাখ ৩ হাজার মেট্রিক টন। মৎস্য উৎপাদনে বাংলাদেশের সাফল্য আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও স্বীকৃত। বিশ্বে অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ে মৎস্য আহরণে বাংলাদেশ তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে, বদ্ধ জলাশয়ে চাষকৃত মাছ উৎপাদনে পঞ্চম, ইলিশ উৎপাদনে প্রথম ও তেলাপিয়া উৎপাদনে চতুর্থ।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, ২৮ আগস্ট থেকে ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সারাদেশে মৎস্য সপ্তাহ শুরু হচ্ছে এবং যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক এটি পালন করা হবে। এবারের মৎস্য সপ্তাহের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘বেশি বেশি মাছ চাষ করি, বেকারত্ব দূর করি’।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মৎস্য সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন ২৯ আগস্ট রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০২১ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে তিনি জাতীয় সংসদের লেকে মাছের পোনা অবমুক্ত করবেন।