নববধূর লাশ উদ্বার; উদ্বার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা

0
15

রাজশাহীর পদ্মায় নৌকাডুবিতে নববধূর লাশ উদ্বার হয়েছে। সোমবার সকাল ৬টার দিকে নগরীর কাটাখালি থানার শাহাপুর এলাকা থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করেন ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারীরা। এর আগে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ ৯ জনের মধ্যে ৮ জনের লাশ উদ্বার করা হয়েছিল। বাকি ছিল কনে স্ইুটি খাতুন। আজ তার লাশ খুঁেজ পাবার মধ্যে দিয়ে নিখোঁজ ৯ জনের সবাইকে উদ্বার করা সম্ভব হলো। রাজশাহীর নৌ-পুলিশের পবা ফাঁড়ির ইনচার্জ মেহেদী মাসুদ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। দুটি নৌকায় মোট ৪১ জন যাত্রীর ছিল।

সর্বশেষ রোববার বিকেল ৩টার দিকে চারঘাট উপজেলার টাঙন পূর্বপাড়া এলাকার পদ্মা নদী থেকে পূর্ণিমার খালা আঁখি খাতুনের (২৫) ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর থেকে কেবল নিখোঁজ ছিলেন নববধূ। এর আগে উদ্বার করা হয়েছিল পূর্ণিমার চাচা শামীম (৪০), চাচি মনি বেগম (৩৫), তাদের মেয়ে রশ্মি (১০), পূর্ণিমার দুলাভাই রতন আলী (২৮), ভাগনি মরিয়ম (৮), খালাতো ভাই এখলাস (২৮) ও ফুফাতো বোনের মেয়ে রুবাইয়ার (১০) লাশ।

বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) পদ্মার ওপারের পবা উপজেলার চরখিদিরপুর এলাকার ইনসার আলীর ছেলে আসাদুজ্জামান রুমনের সঙ্গে একই উপজেলার ডাঙেরহাট এলাকার শাহীন আলীর মেয়ে সুইটি খাতুন পূর্ণিমার বিয়ে হয়। শুক্রবার (৬ মার্চ) বরের বাড়ি থেকে দুটি নৌকায় বর-কনেকে নিয়ে আসছিল কনেপক্ষ। সন্ধ্যা ৭টার দিকে নৌকা দুটি রাজশাহী নগরীর শ্রীরামপুর ডিসির বাংলো এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে যায়।