পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা: বিএমপি কমিশনার

0
0

বরিশাল প্রতিনিধি

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি) কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান বলেছেন, প্রতিটি মামলা দক্ষতা আর পেশাদারিত্বের সাথে মনোযোগ দিয়ে তদন্ত করে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে হবে। এসব যারা করবে তাদের জন্য রয়েছে বিশেষ পুরস্কারের ব্যবস্থা। আর যারা মামলা তদন্তে অমনোযোগী, অদক্ষতা, অপেশাদার সুলভ আচরণ, পক্ষপাতিত্বসহ কোন পুলিশ সদস্য কোনভাবে মাদক ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়ালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রোববার বিকেলে নগরীর পুলিশ লাইন্স ড্রিল সেডে আয়োজিত বিএমপির মাসিক কল্যাণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের সাথে মানবিক আচরণের পাশাপাশি ক্রিমিনালদের সাথে আইনের ভাষায় অত্যন্ত কঠোর হতে হবে এবিষয়ে কোন প্রকার শৈথিল্য প্রদর্শন করা যাবে না।

উঠতি যুবক তথা কিশোর অপরাধ বন্ধে, অপরাধের সংস্পর্শে আসতে পারে এমন ঝুঁকিপূর্ণ কিশোরদের তালিকা তৈরি করে মানবাধিকার সমুন্নত রেখে তাদের মা-বাবার সহ সামাজিক নেতৃত্বদানকারী নাগরিকদের সাথে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে। যাতে অপরাধ দানা বাঁধার আগেই তা দ্রুততম সময়ে দমন করতে হবে।

বিএমপির কাউনিয়া থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার (ফোর্স) মো. মাসুদ রানা’র সঞ্চালনায় কল্যাণ সভায় উপস্থিত ছিলেন- বিএমপি উপ-পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, উপ-পুলিশ কমিশনার ক্রাইম অপারেশন এন্ড প্রসিকিউশন খাঁন মুহাম্মদ আবু নাসের, উপ-পুলিশ কমিশনার গোয়েন্দা বিএমপি মো. মনজুর রহমান, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সদর দফতর, উত্তর এন্ড পিএমটি, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ক্রাইম অপারেশন এন্ড প্রসিকিউশন মো. আকরামুল হাসান, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ডিবি মো. রেজাউল করিম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ফোর্স মো. আব্বাসউদ্দীন সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

কল্যাণ সভা শেষে ভালো কাজ এবং বিভিন্ন আভিযানিক কাজের সফলতায় বিভিন্ন পদমর্যাদার ১৮ জন অফিসারদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।