মার্চেই কালবৈশাখীর হানা

0
6

মার্চেই দেশে আঘাত হানতে পারে কয়েকটি কালবৈশাখী ঝড়। এবং হতে পারে তা মাঝারি থেকে তীব্র। এমনটাই জানিয়েছে দেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর। মার্চ মাসের শেষের দিকে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু দাবদাহ বয়ে যেতে পারে বলেও আবহাওয়া অধিদপ্তর পূর্বাভাস দিয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানা যায়, আবহাওয়ার ঋতুচক্রের হিসাবে গ্রীষ্মকাল শুরু হয়ে গেছে। ফলে এই মাসে কালবৈশাখী ও দাবদাহ হওয়াটা স্বাভাবিক। তবে এই মাসে দেশের কয়েকটি এলাকায় স্বাভাবিকের চেয়ে তাপমাত্রা কিছুটা বেশি থাকতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তর আরো বলেছে, মার্চ মাসে হঠাৎ বন্যার আশঙ্কা রয়েছ। চলতি মাসের শেষের দিকে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এতে ওই এলাকায় পানির ঢল আকস্মিক বন্যা সৃষ্টি করতে পারে। সেই সঙ্গে চার-পাঁচ দিন দমকা হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।

আজ মঙ্গলবারের জন্য আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে কিছু কিছু এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। জলীয়বাষ্পপূর্ণ পশ্চিমা বায়ু ও শুষ্ক পুবালি বায়ুর সংস্পর্শে দেশের বিভিন্ন স্থানে মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে। এর ফলে কাল বুধবার দেশের বেশির ভাগ স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি থেকে হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। বৃহস্পতিবারও ওই বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সিলেটে, ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া ও কুড়িগ্রামের রাজারহাটে, ১৪ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর রাজধানীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ দশমিক ৪ ডিগ্রি ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।