রাজনৈতিক মোল্লাদের আইনের আওতায় আনতে হবে: ইনু

0
1

নিজস্ব প্রতিবেদক :

কোনো ছাড় না দিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহী রাজনৈতিক মোল্লাদের আইনের আওতায় আনার দাবি করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে সংবিধান-ইতিহাস-ঐতিহ্য-ভাস্কর্য বিরোধী রাষ্ট্রদ্রোহীদের আইনের আওতায় আনার দাবিতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে এ দাবি করেন তিনি।

হাসানুল হক ইনু বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের সবকিছুই মীমাংসিত হয়েছে। বাংলাদেশ রাষ্ট্র কীভাবে চলবে তা সংবিধানে পরিষ্কারভাবে বলা আছে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতীক। মুক্তিযুদ্ধ বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অস্তিত্বের ভিত্তি। সবার ওপর দেশ-রাষ্ট্র-বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ। তাই রাষ্ট্র-সংবিধান-বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ-ভাস্কর্য-ইতিহাস-ঐতিহ্য নিয়ে কোনো ছাড়, আপস, সমঝোতার পথ নেই।

ভাস্কর্য বিরোধিতার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোনো ছাড় না দিয়ে সংবিধানবিরোধী রাষ্ট্রদ্রোহী রাজনৈতিক মোল্লাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। রাজনৈতিক মোল্লাদের ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্য-উস্কানি-ফতোয়াবাজি বন্ধ করতে হবে। যুদ্ধাপরাধীদের যেভাবে বিচারের মুখোমুখি করা হয়েছে ঠিক সেভাবেই ভাস্কর্যবিরোধী রাষ্ট্রদ্রোহীদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। ভাস্কর্য ভাঙচুরের সাথে যুক্ত রাষ্ট্রদ্রোহী অপরাধী যেই হোক তাদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, রাজনৈতিক নেতাই হন বা বুদ্ধিজীবীই হন সবাইকেই দেশের রাজনীতি-অর্থনীতির অন্যান্য বিষয়ে কথা বলার আগে বাংলাদেশের অস্তিত্বের ভিত্তিতে আঘাতকারী রাজনৈতিক মোল্লাদের বিষয়ে সুস্পষ্ট অবস্থান নিতে হবে, পরিষ্কার কথা বলতে হবে।

ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাসদের সাধারণ সম্পাদক এবং সংসদ সদস্য শিরীন আখতার, জাসদের সহ-সভাপতি ও ঢাকা মহানগর উত্তর জাসদের সভাপতি সফি উদ্দিন মোল্লা, জাসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নইমুল আহসান জুয়েল, জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশের সভাপতি সইফুজ্জামান বাদশা, ঢাকা মহানগর পশ্চিম জাসদের সাধারণ সম্পাদল মো. নুরুন্নবী, জাতীয় যুব জোটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সামছুল ইসলাম সুমন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (হা-ন) কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আহসান হাবীব শামীম প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে জাসদের নেতা-কর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ, পল্টন, তোপখানা, প্রেসক্লাব, হাইকোর্ট, বায়তুল মোকাররম, দৈনিক বাংলা, গুলিস্তান এলাকা প্রদক্ষিণ করেন।